Administrators

+880 1818 73 50 96
+880 1716 54 18 19
+880 1813 65 84 72

About

যারা ২০০০ সালে এসএসসি/সমমানের পরীক্ষার জন্য রেজিস্ট্রেশান করেছে অথবা ২০০০ সালে এসএসসি/সমমানের পরীক্ষায় পাশ করেছে অথবা ২০০২ সালে এইচএসসি/সমমানের পরীক্ষায় পাশ করেছে, বাংলাদেশের যে কোন স্কুল/ কলেজ/ মাদ্রাসা থেকে তাদেরকে এক ছাতার নীচে নিয়ে আসা। স্কুলের বন্ধুরা যে কে কোথায় হারিয়ে গেছে ঠিক মনে নেই/ জানা নেই। কে চায় না তার হারিয়ে যাওয়া বন্ধুকে খুঁজে পেতে! আর সেই হারিয়ে যাওয়া বন্ধুদের একটি প্লাটফর্মে নিয়ে এসে একে অপরের বিপদে-আপদে, সুখে-দুঃখের, আনন্দ-কান্নার সঙ্গী হয়ে গ্রুপ এর পিছিয়ে পড়া সদস্য সহ সমাজের অবহেলিত মানুষ গুলোর জন্য কাজ করে যাওয়াই অন্যতম উদ্দেশ্য ও লক্ষ্য।

Contact

Phone:
+880 1818 73 50 96
+880 1716 54 18 19
+880 1813 65 84 72
Email:
info@amraikingbadanti.com
kingbadanti00.02@gmail.com

146703
Total
Visitors

আমরাই কিংবদন্তী (এসএসসি ২০০০ এবং এইচএসসি ২০০২) একটি অনলাইন ভিত্তিক ফেসবুক গ্রুপ, যেখানে সারা বাংলাদেশের এসএসসি ২০০০ এবং এইচএসসি ২০০২ সালের ছাত্র-ছাত্রীদের একত্র করে একক প্লাটফর্মে আনার চেষ্টা চলছে।

মানব কল্যাণে গ্রুপের পিছিয়ে পড়া সদস্য ছাড়াও সমাজের অবহেলিত মানুষগুলোর জন্য কাজ করাই গ্রুপ এর অন্যতম লক্ষ্যগুলোর একটি। ধারাবাহিক সামাজিক কাজের অংশ হিসাবে ২২ ই নভেম্বর ২০১৯ টাঙ্গাইলের গোপালপুরের লক্ষ্মীপুর গ্রামস্থ “এস এল উচ্চ বিদ্যালয়” প্রাঙ্গনে একটি বিনামূল্যে চিকিৎসা সেবা পরামর্শ ও বিনামূল্যে ঔষধ বিতরণ কাজের আয়োজন করে। উল্লেখিত এই ক্যাম্পে ১০ জন অভিজ্ঞ ডাক্তারসহ সেচ্ছাসেবক হিসেবে ঢাকা ও টাঙ্গাইলের এর প্রায় ৩০ জন সদস্যের একটি দল প্রায় ৯ শতাধিক রোগীদেরকে বিনামূল্যে চিকিৎসাসেবা পরামর্শ ও ঔষধ প্রদান করে সকাল ৯:৩০ টা থেকে দুপুর ৩ টা পর্যন্ত।

উল্লেখ্যযে “মানবতার কল্যাণে কিংবদন্তী সবখানে” এই নীতিকথা থেকেই ১৫ নভেম্বর ২০১৭ থেকে যাত্রা শুরু করে বর্তমানে ২৬ হাজার সদস্যের পরিবারটি গত ১৫ নভেম্বর ২০১৯ তারিখে ৩য় বর্ষে পদার্পণ করে। এই উপলক্ষে ইতিমধ্যে সারা দেশব্যাপী একসাথে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম ও জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে কাজ করেছিল গ্রুপ এর সদস্যরা। এই গ্রুপটি এর আগেও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিজেদের নিয়োজিত রেখেছিল; তারমধ্যে অন্যতম হচ্ছে দেশ জুড়ে পরিচ্ছন্নতা ও জনসচেতনতা, প্রতিবন্ধী শিশুদের সহায়তা কার্যক্রম, ফ্রি হেলথ ক্যাম্প, অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস সরবরাহ ও খাবার বিতরণ, বৃদ্ধাশ্রমে চিকিৎসা ও খাবার সরবরাহ এবং রক্তদান কর্মসূচীসহ বিবিধ কার্যক্রম।

একটি অনলাইন ভিত্তিক গ্রুপ হয়েও বন্ধুরা শুধু অনলাইনেই সীমাবদ্ধ না থেকে দেশের, সমাজের বিভিন্ন কাজে এগিয়ে এসেছে বন্ধুদের গ্রুপটি। এর সাথে যুক্ত হয়েছে সমাজের কিছু সচেতন সু-নাগরিক, যারা এই গ্রুপটি কে প্রতিনিয়ত ভালো কাজে উৎসাহ দিচ্ছে। ধারাবাহিক ভাবে গ্রুপের পিছিয়ে পড়া সদস্যসহ দেশের প্রতিটি অঞ্চলের অসহায় মানুষদের পাশে চিকিৎসা সেবা সহ সকল মৌলিক সেবা পৌঁছে দিতে পরিকল্পনা করছে এই গ্রুপের সদস্যরা ।

ধন্যবাদ

“আমরাই কিংবদন্তী” (এস এস সি ২০০০ ও এইচ এস সি ২০০২) একটি অনলাইন ভিত্তিক প্রায় ২৬ হাজার সদস্যর একটি সামাজিক সংগঠন ১৫ নভেম্বর ২০১৭ সালে যাত্রা শুরু করে ১৫ নভেম্বর ২০১৯; ৩য় বর্ষে পদার্পণ করেছে। এই উপলক্ষে সারা দেশের বিভিন্ন জেলার ৪০ টি স্থানে গ্রুপের সদস্যরা একসাথে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম ও জনসচেতনতা তৈরির লক্ষ্যে কাজ করেছে। এছাড়া প্রবাসী ১০ টি দেশের বন্ধুরাও দিনটিকে উদযাপন করেছে, বাংলাদেশের সদস্যদের সাথে তাল মিলিয়ে একসাথে।

প্রতিটি জেলার একটি করে বিদ্যালয় ও তৎসংলগ্ন এলাকাকে নির্ধারণ করা হয়ে ছিল, কার্যক্রমের স্থান হিসাবে। এই কার্যক্রমে গ্রুপের পক্ষ থেকে ডাস্টবিন স্থাপন, সচেতনতামূলক (পরিবেশ দূষণমুক্ত ও পরিচ্ছন্নতা বিষয়ক) লিফলেটসহ পরিচ্ছন্নতা সরঞ্জাম বিতরণ ও গ্রুপ এর সদস্যদের উপস্থিতিতে পরিচ্ছন্নতা কার্যক্রম পরিচালনা করা হয়েছে। বিদ্যালয় নির্ধারণের ক্ষেত্রে জেলার প্রদান বিদ্যাপীঠ, অসহায়, এতিম ও সুবিধাবঞ্ছিতদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানকে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে।

ঢাকার আয়োজন্স্থল  ছিল মিরপুরের সরকারী শিশু পরিবার (বালক)। সারাদিন ব্যাপী আয়োজনে গ্রুপের সদস্যরা এই কেন্দ্রে উপস্থিত থেকে বাচ্চাদের পচিচ্ছন্নতা, জনসচেতনতা, মানবিক গুণাবলী বিষয়ক আলোচনা অনুষ্ঠানের মাধ্যমে অনুপ্রাণিত করার চেষ্টা করে। বিকেলে গ্রুপ এর সদস্যরা আয়োজন করে মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের।

এই গ্রুপটি এর আগেও সামাজিক দায়বদ্ধতা থেকে বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিজেদের নিয়োজিত রেখেছিল; তারমধ্যে অন্যতম হচ্ছে প্রতিবন্ধী শিশুদের সহায়তা কার্যক্রম, ফ্রি হেলথ ক্যাম্প, অসহায় মানুষের মাঝে শীতবস্ত্র, নিত্য প্রয়োজনীয় জিনিস সরবরাহ ও খাবার বিতরণ, বৃদ্ধাশ্রমে চিকিৎসা ও খাবার সরবরাহ এবং রক্তদান কর্মসূচীসহ বিবিধ কার্যক্রম।

অনুষ্ঠানের মাধ্যমে গ্রুপের সদস্যরা ঐক্যবদ্ধ ভাবে গ্রুপের পিছিয়ে পড়া সদস্যসহ সমাজের অবহেলিত মানুষের জন্য কাজ করতে প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হয়।